1. meheralibachcu@gmail.com : Meher Ali Bachcu : Meher Ali Bachcu
  2. anarulbabu18@gmail.com : Anarul Babu : Anarul Babu
  3. mahabub3044@gmail.com : Mahabub Islam : Mahabub Islam
  4. dainikmeherpurdarpon@gmail.com : meherpurdarpon :
  5. n.monjurul3@gmail.com : monjurul : monjurul
  6. banglahost.net@gmail.com : rahad :
মেহেরপুরে চোর সন্দেহে ৩-জনকে গণপিটুনি। - দৈনিক মেহেরপুর দর্পণ
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

মেহেরপুরে চোর সন্দেহে ৩-জনকে গণপিটুনি।

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ১৬৮ বার পঠিত
মেহেরপুর সদর উপজেলার কাঁঠালপোটা গ্রামে চোর সন্দেহে তিনজনকে গণপিটুনি দিয়েছে গ্রামবাসী। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশের একটি দল তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে চোর সন্দেহ করা ৩জনের দাবি তারা ফল ব্যবসায়ী। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে সদর উপজেলার কাঁঠালপোতা ব্রিজের কাছে এই ঘটনা ঘটে।
গণপিটুনির শিকার তিনজন হলেন, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পাগলাকান্দি গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে আনিস (৩৫), একই উপজেলার চরগোয়াল গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে বকুল (৪২) ও একই জেলার মহেশপুর উপজেলার ঠান্ডু মিয়ার ছেলে অপু (১৯)।
স্থানীয়রা জানান, ঘটনার সময় গ্রামের তালুক নামে এক ব্যক্তির একটি ডিসকোভারি মোটরসাইকেল চুরি করে তিন চোর দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাচ্ছিলেন। সেই সময় গ্রামবাসীরা তাদের ধাওয়া করলে কাঁঠালপোতা ব্রিজের নিকট পড়ে গেলে গ্রামবাসী তাদের গণপিটুনি শুরু করে।
পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আশাদুল ইসলাম আশা বলেন, গত দুই মাস ধরে গ্রামে চুরির সংখ্যা বেড়ে গেছে তাই গ্রামবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে আছে। গত কয়েক দিন আগেও একটি মোটরসাইকেল চুরি হয় যা সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। সিসিটিভির ফুটেজ অনুযায়ী একজনকে সনাক্ত করা হয়। আজ সনাক্তকারী ওই চোরকে দেখে গ্রামবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে যায়। তাদের চুরি করার সময় হাতেনাতে ঘেরাও করে গ্রামবাসী গণপিটুনি দেয়। সেয় সময় তাদের জিবনের নিরপত্তার কথা ভেবে পুলিশকে ফোন দিলে। পিরোজপুর ক্যাম্পের পুলিশ ও মেহেরপুর সদর থানার পুলিশের একটি টিম তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর ২৫০শয্যা বিশিষ্ঠ হাসপাতালে ভর্তি করে।
তবে গণপিটুনির শিকার তিনজনের দাবি তারা ফল ব্যবসায়ী। পেয়ারা কিনতে তারা নিজ মোটরসাইকেল যোগে মেহেরপুর সদর উপজেলার কাঁঠালপোতা গ্রামে এসেছিলেন।
মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সাইফুল ইসলাম জানান, গণপিটুনির শিকার তিনজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সকলেই এখন চিকিৎসাধীন রয়েছে। মেডিকেল পরীক্ষার পর তাদের অবস্থা বোঝা যাবে।
মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, মেহেরপুরে হঠাৎ করে মোটর সাইকেল চুরির সংখ্যা বেড়ে গেছে। মেহেরপুর সদর উপজেলার কাঁঠালপোতা গ্রামে চোর সন্দেহে তিনজনকে ধরে গণপিটুনি দেওয়া হচ্ছে। এমন সংবাদ পেলে সদর থানা পুলিশের একটি টিম সেখানে উপস্থিত হয়ে জনগণের হাত থেকে তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তারা পার্শ্ববর্তী জেলা থেকে এসে চুরির ঘটনা ঘটায়। এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি শুনে অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Bangla Webs